Contact Admin About me
 
Go to Silchar Sight
Go to Bengali Calendar
Go to Bengali Forum
Go to Kanchanmoni's Blog
Go to Durga Puja Page
Go to Home Page
.
How to make snack
How to cook Daal
How to fry
How to cook veg
Fish
How to cook Prowns
How to cook meat
How to cook chicken
How to cook egg
How to cook Rice
How to make pullow
How to make birany
How to make chatni
How to make pithe
 
 
 
 
 
 
 

Welcome to Amar Anubhuti
 
 
 
Send free Greetings
 
 
 
See us on Facebook
 
 
 
Sign our Guestbook
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Indian Fish Recipes, How to Coock Fish
Indian Bengali sizzling cooking recipe site is providing you the information on how to cook fish Indian Bengali style. You'll find some of the most unique and interesting recipes here! You will learn how to cook a multitude of delicious Food mostly simple & easy. I believe cooking is an art & you add spice, salt & oil according to your liking; most of it is everyday cooking.
 

ভাপে ইলিশ 
উপকরনঃ ইলিশ পেটি ৬ পিস, সাদা সরষে বাটা ৩ চামচ, কাঁচালঙ্কা ৬টি, হলুদ গুঁড়ো ১চাঃ, সরষের তেল ২ টেবিল চামচ ও নুন।

প্রণালী; মাছ ভালো করে ধুয়ে রাখুন একটি(মাক্র ওভেন)বাটিতে। মাছের গায়ে সরষে বাটা, হলুদ গুঁড়ো ও নুন একসঙ্গে মাখিয়ে নিন। ওপরে কাঁচালঙ্কা ও সরষের তেল দিয়ে বাটি ডেকে দিয়ে মাক্র ওভেনে ৩মিনিট কুক করেন। এবার গরম গরম খেতে দিন।

মশলা মাছ
উপকরনঃরুই অথবা কাতলা মাছ ৮ পিস,  পেঁয়াজবাটা ৩টি, রসুনবাটা ২চা চামচ, আদাবাটা ২চা চামচ, হলুদ গুঁড়ো ১চাঃ, কাঁচালঙ্কা কুচি ৪ঠি, ধনেপাতা কুচি ২টেবিল চামচ, নুন ও তেল।

প্রণালী; মাছ ভালো করে ধুয়ে হলুদ ও নুন মাখিয়ে ফ্রাইপ্যানে তেলদিয়ে ভেজে মাছ গুলি নামিয়ে রাখেন। ফ্রাইপ্যানে তেল গরম করে পেঁয়াজবাটা, রসুনবাটা, আদাবাটা, কাঁচালঙ্কা কুচি একসাতে ভেজে এবার ভাজা মাছ ও ধনেপাতা কুচি দিয়ে ভাল করে নেড়ে নামিয়ে নিন।

মুড়িঘণ্ট
উপকরণ : বড় রুই মাছের মাথা ও লেজ (কেটে, বেছে, ধুয়ে পরিষ্কার করে নেওয়া) ৭০০ গ্রাম, পোলাওয়ের চাল আধা কাপ, ঘি সিকি কাপ, তেল আধা কাপ, পেঁয়াজ কুচি এক কাপ, রসুন কুচি এক টেবিল চামচ, তেজপাতা দুটি, কাঁচা মরিচ ছয়টি, জিরা বাটা দেড় টেবিল চামচ, দারুচিনি চারটি, এলাচ চারটি, লবঙ্গ তিনটি, ধনে গুঁড়া দেড় টেবিল চামচ, আদা-রসুন বাটা দুই টেবিল চামচ, হলুদ গুঁড়া দুই চা-চামচ, মরিচ গুঁড়া দুই চা-চামচ, গোল মরিচ গুঁড়া আধা চা-চামচ, পেঁয়াজ বাটা তিন টেবিল চামচ, চিনি ও লবণ এক চা-চামচ করে অথবা স্বাদ অনুযায়ী।

প্রণালি : চাল ধুয়ে পানি ঝরিয়ে ঘিয়ে ভালো করে ভেজে রাখুন। আধা কাপ তেলে দুটো কাঁচা মরিচ কুচি ও তেজপাতার ফোড়ন দিয়ে আধা কাপ পেঁয়াজ কুচি ও রসুন কুচি দিয়ে ভাজুন। সব বাটা ও গুঁড়া মসলা দিয়ে অল্প জল এবং লবণ-চিনি দিয়ে কষিয়ে নিন। এক কাপ জল দিয়ে আরও ১০-১৫ মিনিট কষিয়ে নিন। কাঁটা ও লেজের অংশ বাদ দিয়ে এতে শুধু মুড়োটা দিয়ে দুই-তিন মিনিট কষিয়ে নিন। দুই কাপ জল দিয়ে ঢেকে অল্প আঁচে সেদ্ধ করুন। মুড়ো সেদ্ধ হলে আলাদা বাটিতে উঠিয়ে রেখে লেজ ও কাটা দিয়ে অল্প আঁচে দুই-তিন মিনিট কষিয়ে সামান্য জল দিয়ে ঢেকে দিন। মুড়োটা হাত দিয়ে ভেঙে এতে দিয়ে দিন। এবার ভাজা চালটা দিয়ে আলতোভাবে মিশিয়ে নেড়ে চার কাপ ফুটানো গরম জল দিয়ে মৃদু আঁচে ঢেকে রাখুন বেশ কিছুক্ষণ। পাশের চুলায় ফ্রাইপ্যানে বাকি আধা কাপ তেলে গরম মসলার ফোড়ন দিয়ে অবশিষ্ট পেঁয়াজ বেরেস্তা করে ও কাঁচা মরিচ দিয়ে কিছুক্ষণ নেড়ে মুড়িঘণ্ট বাগার দিন। বাগারের তেল ও বেরেস্তা হালকাভাবে ভালো করে নেড়ে মুড়িঘণ্টের সঙ্গে মিশিয়ে ঢেকে দিন। অল্প আঁচে ১০-১৫ মিনিট গরম তাওয়ার ওপর দমে রাখুন। তেল ওপরে উঠলে নামিয়ে পরিবেশন।

রুই / টমেটোর ঝোল
উপকরণ: রুই মাছ ছয় টুকরা, টমেটো তিনটি, পেঁয়াজবাটা তিন টেবিল-চামচ, রসুন, আদা আধা চা-চামচ করে, ধনে, হলুদ, মরিচ ও জিরা গুঁড়া আধা চা-চামচ করে, এক চিমটি কালোজিরা, কাঁচামরিচ ও ধনেপাতা একসঙ্গে বাটা এক চা-চামচ, তেল আধা কাপ, রসুন কুচি আধা চা-চামচ, পেঁয়াজ কুচি তিন টেবিল-চামচ।
প্রণালি: লবণ দিয়ে মাছ হালকা ভেজে নিতে হবে। এবার কালোজিরা ফোড়ন দিয়ে রসুন ও পেঁয়াজ নরম করে ভেজে সব বাটা ও গুঁড়া মসলা একটু জল দিয়ে কষাতে হবে। মসলার গন্ধ বের হলে মাছ দিয়ে আরও একটু কষাতে হবে। এবার টমেটো ফালি করে পরিমাণমতো ঝোল দিয়ে পাঁচ-ছয় মিনিট রান্না করতে হবে। ওপরে জিরা গুঁড়া ছড়িয়ে নামাতে হবে।

তেলাপিয়া/ক্যাপসিকাম ও সবজিতে
উপকরণ : আধা কেজি ওজনের তেলাপিয়া মাছ ১টি, লেবুর রস ২ টেবিল-চামচ, মরিচগুঁড়া ২ টেবিল-চামচ, আদাবাটা ২ চা-চামচ, রসুনবাটা ১ চা-চামচ, ফিশ সস ৩ টেবিল-চামচ, লবণ সামান্য, লাল-হলুদ-সবুজ ক্যাপসিকাম টুকরা ১ কাপ, বেবিকর্ন-ফুলকপি-বরবটি-গাজর-সিম ১ কাপ, টমেটো টুকরা করে কাটা সিকি কাপ, পেঁয়াজ পাপড়ি (ভাঁজ খোলা) সিকি কাপ, কাঁচা মরিচ ৫-৬টি, অলিভ অয়েল ৩ টেবিল-চামচ, কর্নফ্লাওয়ার ১ টেবিল-চামচ, ময়দা ৩ টেবিল-চামচ, সাদা গোলমরিচগুঁড়া ১ চা-চামচ, তেল ভাজার জন্য, চিনি ১ চা-চামচ, রসুনকুচি ১ চা-চামচ।

প্রণালি : মাছ ধুয়ে পরিষ্কার করে জল ঝরিয়ে নিন। মাছের গায়ে বরফি আকারে দাগ কেটে লেবুর রস দিন। মরিচগুঁড়া অর্ধেক, আদা-রসুনবাটা অর্ধেক, ফিশ সস ও সামান্য লবণ মিলিয়ে মাছের দুই পিঠে ও পেটে ভালো করে লাগিয়ে ৩০-৩৫ মিনিট ম্যারিনেট করতে হবে। মাছের দুই পিঠে ময়দা লাগিয়ে ডুবো গরম তেলে বাদামি রং না হওয়া পর্যন্ত ভাজতে হবে। সার্ভিং ডিশে রাখুন। অলিভ অয়েল গরম করে তাতে রসুন বাদামি রং না হওয়া পর্যন্ত ভাজতে হবে। এরপর তাতে আদা-রসুনবাটা, ফিশ সসসহ পর্যায়ক্রমে বাকি সব সবজি দিয়ে কিছুক্ষণ কষিয়ে ১ কাপ পানি দিতে হবে। ফুটে উঠলে লবণ, টমেটো, ক্যাপসিকাম, পেঁয়াজের পাপড়িগুলো দিতে হবে। আধা কাপ কুসুম গরম জলে কর্নফ্লাওয়ার গুলিয়ে, চিনি, লেবুর রস মিলিয়ে দিন। কাঁচা মরিচ গোলমরিচগুঁড়া মিলিয়ে মাছের ওপর ঢেলে দিতে হবে। গরম গরম সাদা ভাত, ফ্রায়েড রাইস, পোলাওয়ের সঙ্গে পরিবেশন করা যায়।

রুই চচ্চড়ি / লেবুপাতায় রুই চচ্চড়ি 
উপকরণ : চার কোনা করে কাটা রুই মাছ ৫০০ গ্রাম; কচি লেবুপাতা ৩-৪টি; লেবুর রস ১ টেবিল-চামচ; আদা ও রসুন বাটা ১ চা-চামচ করে; পেঁয়াজ বাটা ২ টেবিল-চামচ; হলুদ, মরিচ ও ধনের গুঁড়া আধা চা-চামচ করে; লবণ, চিনি ও কাঁচা মরিচ স্বাদমতো; কুচি করা টমেটো ১টি; তেল ১ কাপ; পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ এবং ধনেপাতা কুচি পরিমাণমতো।

প্রণালি : মাছ অল্প লবণ ও হলুদ দিয়ে ১০ মিনিট মেখে জল ঝরিয়ে হালকাভাবে ভেজে নিন। এবার ওই তেলেই পেঁয়াজ লাল করে ভেজে সব বাটা ও গুঁড়া মসলা টমেটো দিয়ে কষান। এই রান্নায় জল ব্যবহার করা যাবে না। মসলা ২-৩ মিনিট কষানোর পর মাছ, লবণ ও চিনি দিয়ে নেড়ে অল্প আঁচে ঢেকে ৫-৬ মিনিট রান্না করুন। এখন লেবুপাতা ও লেবুর রস দিয়ে ওপরে কাঁচা মরিচ ও ধনেপাতা ছড়িয়ে ২ মিনিট দমে রেখে নামান। পরিবেশনের আগে ওপরে কয়েকটি লেবুপাতাদিন।

ভেটকি বা রুই ফিশ নবাবী 
উপকরণ: ভেটকি বা রুই মাছের টুকরো-৬টি, পেঁয়াজ-২টি (বাটা), আদাব বাটা-১ চা চামচ, রসুন বাটা-৪ কোয়া, পোস্ত বাটা-১ টেবিল চামচ, কিশমিশ বাটা-১ টেবিল চামচ, শুকনো মরিচ বাটা-৪টি, টক দই-৫০ গ্রাম, টমাটো-২টি, ঘন ক্রিম- আধা কাপ, চিনি ও লবণ-স্বাদমতো, তেল-৫০ গ্রাম, ঘি-২ টেবিল চামচ, গরম মসলা-১ চা চামচ, হলুদ-সামান্য।

প্রণালি :মাছের টুকরোর সঙ্গে লবণ ও হলুদ মাখিয়ে আধঘণ্টা রেখে দিন। কড়াইয়ে আন্দাজমতো তেল গরম করে মাছগুলো ভেজে তুলে নিন। আলাদা একটা কড়াইয়ে বাকি তেল গরম করে প্রথমে পেঁয়াজ হালকা করে ভেজে তাতে চিনি ও কিশমিশ বাটা মেশান। যখন দেখবেন হালকা বাদামি রঙ হয়েছে তখন তাকে এক এক করে সব মসলা, টকদই ও টমাটো কুচানো, দিয়ে ভাল করে কষিয়ে আন্দাজমতো লবণ ও জল দিন। একবার ফুটে উঠলে ভাজা মাছ এর মধ্যে দিয়ে অল্প আঁচে রাখুন। যখন ঝোল ঘন হয়ে আসবে তখন নামিয়ে ঘি ঢেলে দিন। পরিবেশন পাত্রে মাছ সাজিয়ে ক্রিম ভাল করে ফেটিয়ে মাছের টুকরোর ওপর ঢেলে দিন।

ভাপা আস্ত ইলিশ
উপকরণ : মাঝারি সাইজের ইলিশ দুটি, পেঁয়াজ এক কাপ, লবণ পরিমাণমতো, কাঁচা মরিচ কুচি ছয়টি, এলাচ বাটা এক চা চামচ, দারুচিনি বাটা এক চা চামচ, ধনেপাতা কুচি এক টেবিল চামচ, চিনি এক চা চামচ, সয়াবিন তেল দুই টেবিল চামচ।

প্রণালি :  মাছ ধুয়ে ধারালো ছুরি দিয়ে সমানভাবে বুক চিরে ভেতর থেকে কাঁটা ও মাছ বের করুন সাবধানে।এরপর মাছ মিহি করে বেটে নিন। কড়াইয়ে সামান্য তেলে পেঁয়াজ, মরিচ নরম করে ভেজে তাতে এলাচ বাটা ও ধনেপাতা দিয়ে ভালো করে নেড়ে নামিয়ে ফেলুন।বাটা মাছের সঙ্গে পেঁয়াজ, লবণ ও সামান্য চিনি মেশান।মাছের চামড়ায় লবণ মাখুন।একটি ছড়ানো ডিশে চামড়া বিছিয়ে ভেতরে মাছ ঢুকিয়ে সমান করে নিন।ফ্রাইপ্যানে অল্প তেলে ভেজে গরম গরম পরিবেশন করুন।

কৈ মাছের কালিয়া
উপকরণ : বড় কৈ মাছ ১০টি, টক দই ১ টেবিল চামচ, জিরা গুঁড়া আধা চা চামচ, শুকনা মরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ, হলুদ গুঁড়া এক চা চামচ, আদা বাটা এক চা চামচের চার ভাগের এক ভাগ, পেঁয়াজ বাটা ১ টেবিল চামচ, গরম মশলা গুঁড়া এক চা চামচের চার ভাগের এক ভাগ, ঘি আধা চামচ, সয়াবিন তেল ৪ টেবিল চামচ, লবণ স্বাদমতো, আস্ত কাঁচামরিচ ৪-৫টি।

প্রণালী :কৈ মাছ ভালো করে ধুয়ে হলুদ, লবণ মাখিয়ে দশ মিনিট রাখুন। কড়াইতে তেল দিন, গরম হলে মাছ দু’পিঠ ভালো করে ভেজে নিন। কড়াইতে তেল দিন। টক দইয়ের সঙ্গে গরম মশলা বাদে সব মশলা মিশিয়ে কড়াইতে দিন। মশলা কষানোর পর জল দিন, ফুটে উঠলে মাছ, কাঁচামরিচ ছেড়ে দিন। ঝোল ঘন হলে ঘি, গরম মশলা দিয়ে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

শর্ষে কৈ 
উপকরণ : কৈ মাছ (বড়) ৬টি, সরিষার তেল আধা কাপ, পেঁয়াজ বাটা আড়াই টেবিল চামচ, রসুন বাটা ১ চা চামচ, সরিষা বাটা আধা চা চামচ, জিরা বাটা আধা চা চামচ, হলুদ বাটা আধা চা চামচ, মরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ, পেঁয়াজ কিউব আধা কাপ, লবণ পরিমাণ মতো, কাঁচামরিচ ফালি ৫-৬টি।
প্রণালি : মাছ ভালো মতো ধুয়ে হালকা করে কেটে নিন, সব মসলা মাছের সঙ্গে মাখিয়ে পাত্রে বিছিয়ে চুলায় বসান, কিছুক্ষণ জ্বাল দিয়ে কষানো হয়ে গেলে মাছগুলো সাবধানে উল্টিয়ে নিন, মসলার তেল ওপরে এলে ঝোল মাখামাখা হলে নামিয়ে ফেলুন, গরম গরম পরিবেশন করুন।

ইলিশ পাতুড়ি /লাউপাতায়
 উপকরণ : ইলিশ মাছ ৬ টুকরা, লাউপাতা ৬টি, আদা ও রসুনবাটা ১ চা-চামচ করে, পেঁয়াজ ও সরষে বাটা ১ টেবিল-চামচ করে, হলুদ, মরিচ ও ধনের গুঁড়া আধা চা-চামচ করে, পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ, সরিষার তেল আধা কাপ, কাঁচা মরিচ ফালি ৪-৫টি, কুচি করা টমেটো ১টি, লবণ স্বাদমতো।

প্রণালি : মাছে তেল, পেঁয়াজ, কাঁচা মরিচসহ সব উপকরণ দিয়ে ৩-৪ মিনিট মাখান। এবার লাউপাতায় একটি একটি করে মাছ মুড়িয়ে সুতা দিয়ে ভালো করে বেঁধে দিন। ফ্রাই প্যানে অল্প আঁচে অল্প সরিষার তেল গরম করে পাতায় মোড়ানো মাছ বিছিয়ে দিন। ১০-১২ মিনিট পর উল্টে দিন। এভাবে আরও ১০-১২ মিনিট রেখে নামান। সুতা কেটে পাতার মুখ খুলে পরিবেশন করুন। সবজির রং ঠিক রেখে রান্না করতে চাইলে সামান্য বেকিং পাউডার জলে গুলিয়ে সবজি সেই জলে অল্প সেদ্ধ করে নিলে রং ঠিক থাকবে। ইলিশ মাছের গন্ধ হাতের থেকে সহজে যেতে চায় না। তাই ১ চামচ লবণ ৩-৪ মিনিট হাতের ভেতর কচলিয়ে ধুয়ে ফেললে গন্ধ থাকবে না।

দই ইলিশ 
উপকরণ : ইলিশ ১টা, (এক কেজি ওজনের), সয়াবিন তেল হাফ কাপ, পেঁয়াজ বাটা হাফ কাপ, পেঁয়াজ কুঁচি হাফ কাপ, হলুদ গুঁড়ো ১ চা চামচ, মরিচ গুঁড়ো ১ চা চামচ (না দিলেই হবে), ধনে গুঁড়ো ২ চা চামচ, ভাজা জিরার গুঁড়ো হাফ চা চামচ, আদা বাটা হাফ চা চামচ, লবণ পরিমাণমত, টক বা মিষ্টি দই হাফ কাপ, কাঁচা মরিচ- স্বাদমত।

প্রণালি : ইলিশ মাছের বড় টুকরা করে নিতে হবে। কড়াইয়ে তেল গরম করে পেঁয়াজ দিতে হবে। পেঁয়াজ একটু ভেজে জিরা ও দই বাদে বাকি সব মসলা দিয়ে কষিয়ে নিন। অল্প জল দিয়ে দই ভালো করে ফেটিয়ে দিয়ে দিন। কিছুক্ষণ কষিয়ে ১ কাপ জল ও লবণ দিয়ে ঢেকে মৃদু আঁচে রান্না করতে হবে। দই ভালো করে রান্না হয়ে তেলের উপরে উঠে এলে মাছের টুকরাগুলো বিছিয়ে দিন। চাইলে অল্প জল দিয়ে ঢেকে রান্না করুন। মাঝখানে ঢাকনা খুলে মাছ উল্টিয়ে কাঁচামরিচ দিয়ে ঢেকে নিন। টক দই হলে সামান্য চিনি দিন। মৃদু আঁচে রেখে ভুনা করে চুলা থেকে নামান।

কই মশলা
উপকরণ : কই মাছ ৪টি, সরিষার তেল ৫-৬ চা-চামচ পেঁয়াজবাটা ১ টেবিল চামচ, রসুন ও কাঁচা মরিচ (টেলে বেটে নেওয়া) ১ চা-চামচ, জিরাবাটা আধা চা-চামচ, হলুদগুঁড়া ১ চা-চামচ, মরিচগুঁড়া ১ চা-চামচ, লবণ স্বাদমতো, ধনেপাতা কুচি ১ টেবিল চামচ, লেবুর রস ১ টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচ ফালি ২-৩টি।

প্রণালি : প্রথমে মাছ কেটে ভালো করে জল ঝরাতে হবে। তারপর লেবুর রস, লবণ, সামান্য হলুদ ও মরিচগুঁড়া এবং ১ টেবিল চামচ সরিষার তেল দিয়ে মাখিয়ে ১০ মিনিট মেরিনেট করে রাখতে হবে। ফ্রাইপ্যানে তেল দিয়ে তাতে কই মাছগুলো ভেজে নিন। এবার বাকি তেল ও মসলা দিয়ে ভুনে ১ কাপ পানি দিয়ে তাতে ভাজা মাছগুলো দিতে হবে। কিছুক্ষণ পর একবার মাছ উল্টে দিয়ে ধনে পাতা ও কাঁচা মরিচ ফালি দিতে হবে। তেল ওপরে উঠে এলে নামিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার তেল ককই মশলা ।

সর্ষেবাটা দিয়ে ইলিশ :
উপকরণ : ইলিশ মাছ-৬০০ গ্রাম,  সর্ষে-২ টেবিল চামচ,  কাঁচা লঙ্কা-৬টা, কালোজিরে-১ চা চামচ,  সর্ষের তেল-২ টেবিল চামচ,  হলুদ গুঁড়ো-১ চা চামচ, নুন-স্বাদ মতো

প্রস্তুত প্রণালি : মাছ ধুয়ে নুন ও হলুদ দিয়ে ম্যারিনেট করে রাখুন। সর্ষে, একটা কাঁচালঙ্কা ও অল্প নুন দিয়ে বেটে পেস্ট তৈরি করে নিন। কড়াইতে তেল গরম করে মাছ দিয়ে একবার এপিট ওপিঠ করে হালকা ভেজে তুলে নিন। এবার মাছ ভাজা তেলেই কালোজিরে ও একটা কাঁচালঙ্কা চিরে ফোড়ন দিন। সুন্দর গন্ধ বেরোলে সর্ষে বাটা দিয়ে দিন। অল্প নেড়ে নিয়ে মাছ দিয়ে নেড়েচেড়ে মাছের গায়ে ভাল করে সর্ষেবাটা মাখিয়ে নিন। শেষে জল দিয়ে, নুন ও কাঁচা লঙ্কা চিরে দিয়ে ফুটিয়ে নিয়ে ভাল করে রান্না করে নামিয়ে নিন।  গরম ধোঁয়া ওঠা ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন।

দই রুই মাছ:
উপকরণঃ  (মাছ ম্যারিনেট করার জন্য)  রুই মাছ-১ কেজি, হলুদ গুঁড়ো-১/২ চা চামচ, লাল লঙ্কা গুঁড়ো-৩/৪ চা চামচ, তেল-২ চা চামচ, নুন-পরিমান মতো
(ঝোলের জন্য) সর্ষের তেল-২ টেবিল চামচ,  তেজপাতা-১টা্, দারচিনি-১/২ ইঞ্চি, লবঙ্গ-৪টে,  ছোট এলাচ-৪,৫টা,  জিরে-১/২ চা চামচ, হলুদ গুঁড়ো-১/২ চা চামচ, লাল লঙ্কা গুঁড়ো-১ চা চামচ, আদা রসুনবাটা-২ চা চামচ, পেঁয়াজ বাটা-১টা পেঁয়াজ, দই-১/২ কেজি,  নুন-স্বাদ মতো

প্রণালীঃ একটা বাটিতে মাছ নিয়ে হলুদ, লঙ্কা গুঁড়ো, নুন ও সর্ষের তেল ভাল করে মাছের গায়ে ভাল করে মাখিয়ে বাটি চাপা দিয়ে ১৫ মিনিট ম্যারিনেট করা মাছ রেখে দিন। দই হলুদ ও লঙ্কাগুঁড়ো দিয়ে ভাল করে ফেটিয়ে নিন। এবারে মাঝারি সাইজের ফ্রাইং প্যানে ২ টেবিল চামচ সর্ষের তেল গরম করুন। তেল গরম হলে মাছ দিয়ে দু'পিঠ সুন্দর বাদামি করে ভেজে তুলুন। তেল থেকে মাছ তুলে নিয়ে ওর মধ্যে তেজপাতা, জিরে ও গোটা গরম মশলা ফোড়ন দিন। সুন্দর গন্ধ বেরোলে পেঁয়াজ বাটা দিয়ে হালকা বাদামি করে ভেজে নিয়ে আদা-রসুন বাটা দিন। সুন্দর গন্দ বেরোলে অল্প জল দিন। ওপরে তেল ভাসতে থাকলে আঁচ কমিয়ে ফেটানো দই দিন। ১০ থেকে ১৫ মিনিট নাড়তে থাকুন। যতক্ষণ না গ্রেভি ঘন হয়ে সুন্দর সোনালি হলুদ রং আসছে। নুন দিন। এবার মাছের টুকরো দিয়ে কম আঁচে ১০ মিনিট রান্না করুন। মাছ সেদ্ধ হয়ে তেল ছেড়ে এলে আগুন থেকে নামিয়ে নিন। গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন।

রুই পোলাও
উপকরণঃ  বাসমতি চাল-২ কাপ, রুই মাছ- ৩০০ গ্রাম, ঘি-১২৫ গ্রাম, আস্ত গরম মসলা-এলাচ, দারুচিনি-লবঙ্গ (৩টি করে) তেজপাতা-৪টি, জায়ফল গুঁড়ো আধা চা চামচ, চিনি ১চা চামচ, আদা বাটা, ১ চা চামচ, মরিচ গুঁড়ো আধা চা চামচ, খুব ছোট গোল মরিচ ৪টি, হলুদ আধা চা চামচ।

প্রণালীঃ  মাছ ছোট ছোট টুকরো করে লবণ, হলুদ, মরিচগুঁড়ো ও আদা বাটা মাখিয়ে কিছুক্ষণ রেখে দিন। পরে তেল গরম করে ভেজে তুলে নিন। আলু সিদ্ধ করে খোসা ছাড়িয়ে ভেজে তুলুন। চাল ধুয়ে জল ঝরিয়ে রাখুন। ডেকচিতে ঘি ঢেলে গরম মসলা, তেজপাতা ও চাল ছেড়ে একসঙ্গে নেড়েচেড়ে অল্প ভেজে চারকাপ ফুটন্ত জল, লবণ ও চিনি দিয়ে ঢেকে দিন। ফুটে উঠলে আঁচ কমিয়ে দিন। যখন চাল প্রায় সিদ্ধ হয়ে সব জল শুকিয়ে আসবে তখন ঢাকা খুলে মাছ, আলু, জয়ফল দিয়ে সাবধানে নেড়ে ওপরে কাঁচামরিচ দিয়ে ঢেকে খুব কম আঁচে দশ মিনিট দমে বসিয়ে রেখে নামিয়ে নিন।

পাবদা মাছের দোপেঁয়াজো
উপকরণ : পাবদা মাছ ২৫০ গ্রাম, পেঁয়াজ কুচি ২ কাপ, কাঁচামরিচ ফালি ৭-৮টি, মরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ, হলুদ গুঁড়া ১ চা চামচ, রসুন বাটা আধা চা চামচ, জিরা গুঁড়া আধা চা চামচ, ধনে পাতা কুচি ৩ টেবিল চামচ, তেল এবং জল পরিমাণমতো।

প্রস্তুত প্রণালি : প্রথমে মাছ কুটে ভালোভাবে পরিষ্কার করে ধুয়ে নিন। তারপর একটি কড়াইয়ে তেল গরম করে তাতে পেঁয়াজ ও কাঁচামরিচ ভেজে একে একে সব বাটা ও গুঁড়া মসলা, স্বাদ অনুযায়ী লবণ ও পরিমাণমতো জল দিয়ে মসলা ভালো করে কষিয়ে তাতে মাছগুলো দিয়ে আবার হালকা করে ভুনে তাতে কুচি করা ধনে পাতা ও জিরা গুঁড়া দিয়ে কিছুক্ষণ চুলোয় রেখে ঝোল কমে মাছ মাখা মাখা হয়ে এলে তা নামিয়ে পরিবেশন করুন।

ফিশ ব্যাটার ফ্রাই
উপকরণ : ভেটকি মাছের ফিলে-৫০০ গ্রাম, ময়দা-১ টেবিল চামচ, পার্সলে পাতা-১ কাপ(কুচনো) সাদা তেল, ব্যাটারের জন্য, বেকিং পাউডার-১ চামচ
ময়দা-১ কাপ, ডিম-১টা, সোডা ওয়াটার-১ কাপ, নুন ও গোলমরিচ

প্রণালী : কলের জলের তলায় রেখে মাছের ফিলে ভাল করে ধুয়ে নিন। শুকনো করে নিয়ে ময়দা ও পার্সলে কুচি দিয়ে রোল করে রেখে দিন।এবার একটা পরিষ্কার বাটিতে সোডা ওয়াটার, বেকিং পাউডার, ডিম, ময়দা, নুন ও গোলমরিচ গিয়ে ভাল করে গুলে মসৃণ ব্যাটার বানিয়ে নিন। প্যানে তেল গরম করুন। মাছের প্রতিটা ফিলে ব্যাটারে ভাল করে ডুবিয়ে ডিপ ফ্রাই করে নিন।লেবু, চিপস, টার্টার দিয়ে পরিবেশন করুন।

দই-মাছের কোরমা
উপকরণ: রুই বা কাতলা মাছ ১০/১২ টুকরো, পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ কাঁচামরিচ ৩/৪টি (লম্বা ফালি করা), রসুন কুচি করা ৬/৭ কোয়া, টক দই ২৫০ গ্রাম, ঘি ২ টেবিল চামচ, লবণ স্বাদমতো, চিনি সামান্য।

প্রণালী : প্রথমে মাছের টুকরো ভালো করে ধুয়ে নিন। এবার তাতে লবণ, চিনি, কাঁচা মরিচ ও ফেটানো দই মাখিয়ে ২০/২৫ মিনিট রাখুন। পাত্রে ঘি গরম করে পেঁয়াজ কুচি বাদামি করে ভাজুন। পেঁয়াজ ভাজা হলে মাছের মিশ্রণটি পাত্রে ঢেলে দিন। এবার ঢাকনা দিয়ে ২০ মিনিট আঁচে রাখুন। মাছগুলো উল্টে দিন, তবে মাছ যেন ভেঙে না যায়। ঝোল ঘন হয়ে এলে নামিয়ে ফেলুন। এবার পোলাও অথবা গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন।

পটোলের দোলমায় মাছের ডিম 
উপকরণ: পুর বানানোর জন্য: লবণ হলুদ দিয়ে সিদ্ধ করা জল ঝরানো মাছের ডিম পৌনে এক কাপ। পেঁয়াজ কুচি আধা কাপ। কাঁচা মরিচ কুচি এক টেবিল চামচ। যেকোনো সস এক টেবিল চামচ। হলুদ গুঁড়া সিকি চামচ। তেল দুই টেবিল চামচ। লবণ আধা চা-চামচ অথবা স্বাদ অনুযায়ী।

প্রণালি: ফ্রাই প্যানে তেল গরম করে পেঁয়াজ কুচি ভেজে নিয়ে হলুদ ও দুই টেবিল চামচ জল দিয়ে কিছুক্ষণ কষিয়ে নিন। তাতে মাছের ডিম, লবণ ও কাঁচা মরিচ কুচি এবং সস দিয়ে কিছুক্ষণ নেড়ে আঁচ কমিয়ে ঢেকে দিন। দুই মিনিট পর ঢাকনা খুলে আবারও নেড়ে চুলা বন্ধ করে ঢেকে দিন। পাঁচ মিনিট পর একটি বাটিতে বেড়ে রাখুন।

দোলমা রান্নার জন্য: উপকরণ: বড় বা মাঝারি পটোল ৮-১০টি। পেঁয়াজ কুচি সিকি কাপ। হলুদ গুঁড়া আধা চা-চামচ। মরিচ গুঁড়া সিকি চামচ। পেঁয়াজ বাটা সিকি কাপ। টক দই আধা কাপ। আদা বাটা এক চা-চামচ। রসুন বাটা আধা চা-চামচ। জিরা বাটা আধা চা-চামচ। কাঁচা মরিচ চেরা চারটি। তেজপাতা দুটি। লবণ এক চা- চামচ। গরম মসলার গুঁড়া আধা চামচ। চিনি দুই চা-চামচ। তেল তিন টেবিল চামচ। ঘি এক টেবিল চামচ।

প্রণালি: পটোল ধুয়ে দুই ধারের মুখ কেটে ছিলে ভেতরের বিচি পরিষ্কার করে নিন। দুই পিঠে দু-তিনটি করে আঁক দিন। এবার প্রতিটি পটলের ভেতর ঠেসে পুর ভরে দিন। কর্নফ্লাওয়ার ঘন করে অল্প গুলে তা দিয়ে পটলের মুখ বন্ধ করে দিন। ফ্রাই প্যানে দুই টেবিল চামচ তেল নিয়ে তাতে অল্প জ্বালে ঢেকে পটোলের দুই পিঠ ভেজে নিয়ে উঠিয়ে রাখুন। একটি বাটিতে টক দইয়ের সঙ্গে লবণ, হলুদ ও মরিচের গুঁড়া, চিনি, আদা, রসুন ও জিরা বাটা মিশিয়ে ভালো করে ফেটে নিন। ফ্রাই প্যানে বাকি তেল গরম করে তেজপাতার ফোড়ন দিয়ে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে ভেজে নিন। বাদামি হয়ে এলে বাটা পেঁয়াজ দিয়ে লাল করে ভেজে দইয়ে মেশানো মসলা দিয়ে ভালো করে কষিয়ে নিন। এতে মরিচ ও সিকি কাপ জল দিয়ে পটোলগুলো ছেড়ে নেড়ে মাঝারি আঁচে ঢেকে দিন। ঝোল টেনে এলে গরম মসলার ফাঁকি ও ঘি দিয়ে নেড়ে আবারও কম আঁচে ঢেকে রাখুন পাঁচ মিনিট। তারপর চুলা বন্ধ করে দিন। ১০ মিনিট পর পরিবেশন করুন।

শর্ষে কৈ 
উপকরণ : কৈ মাছ (বড়) ৬টি, সরিষার তেল আধা কাপ, পেঁয়াজ বাটা আড়াই টেবিল চামচ, রসুন বাটা ১ চা চামচ, সরিষা বাটা আধা চা চামচ, জিরা বাটা আধা চা চামচ, হলুদ বাটা আধা চা চামচ, মরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ, পেঁয়াজ কিউব আধা কাপ, লবণ পরিমাণ মতো, কাঁচামরিচ ফালি ৫-৬টি।

প্রস্তুত প্রণালি : মাছ ভালো মতো ধুয়ে হালকা করে কেটে নিন, সব মসলা মাছের সঙ্গে মাখিয়ে পাত্রে বিছিয়ে চুলায় বসান, কিছুক্ষণ জ্বাল দিয়ে কষানো হয়ে গেলে মাছগুলো সাবধানে উল্টিয়ে নিন, মসলার তেল ওপরে এলে ঝোল মাখামাখা হলে নামিয়ে ফেলুন, গরম গরম পরিবেশন করুন।

 
 
 
 
© Copyright 2006 All Rights Reserved Design by Kishor Bhattacharjee   Contact Admin